Logo
শিরোনাম :
নাটোরের বড়াইগ্রামে ক্ষুদ্র ও প্রান্তিক কৃষকদের মাঝে কৃষি প্রণোদনা বিতরণের উদ্বোধন বড়াইগ্রামে ৮০টি অসহায় পরিবারকে খাদ্য সহায়তা প্রদান নাটোরের বড়াইগ্রামে আবু সাঈদ স্মৃতি পাঠাগারের শুভ উদ্বোধন লালপুরের গোপালপুর পৌরসভায় দ্বিতীয় ডোজের গণটিকাদান কার্যক্রম শুরু বড়াইগ্রামে উপজেলা মহিলা ভাইস চেয়ারম্যানের পদত্যাগ! কালিহাতীতে গণমাধ্যমকর্মী আব্বাস আলীকে হত্যার হুমকি প্রদানকারীদের শাস্তির দাবিতে মানববন্ধন   বড়াইগ্রামের মাঝগাঁও ইউনিয়নের উন্নয়ন প্রতিবন্ধকতা কাটাতে সুইটকে চেয়ারম্যান চান তরুণেরা লালপুরে নবেসুমির শ্রমিক ছাঁটাইয়ের প্রতিবাদে কৃষক-শ্রমিক সমাবেশ টাঙ্গাইলের মধুপুরে আদিবাসী গণমাধ্যমকর্মীকে নির্যাতনের প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন নাটোরের লালপুরে ইউপি নির্বাচনকে সামনে রেখে “শফিকুল ইসলাম শফি’র” গণসংযোগ

টাঙ্গাইলের মধুপুরে আদিবাসী গণমাধ্যমকর্মীকে নির্যাতনের প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন

টাঙ্গাইল প্রতিনিধিঃ
টাঙ্গাইলের মধুপুরে আদিবাসী গণমাধ্যমকর্মী প্রিন্স এডওয়ার্ড মাংসাংকে নির্যাতনের প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়েছে। টাঙ্গাইল প্রেসক্লাবের বঙ্গবন্ধু অডিটরিয়ামে ৭ সেপ্টেম্বর মঙ্গলবার দুপুরে অনুষ্ঠিত সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে গণমাধ্যমকর্মীকে নির্যাতনকারী ইউপি চেয়ারম্যানের অপসারণ ও শাস্তি দাবি করা হয়।
লিখিত বক্তব্যে গণমাধ্যমকর্মী প্রিন্স এডওয়ার্ড মাংসাং জানান, গত ১৮ আগস্ট মধুপুর উপজেলার জলছত্র হাওদা বিলে দুজন কিশোরের লাশ সংক্রান্ত খবর পেয়ে প্রিন্স এডওয়ার্ড মাংসাং সেখানে যান। তাকে দেখামাত্র মধুপুর উপজেলার অরণখোলা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান আব্দুর রহিম পূর্বশত্রুতার জের ধরে অশ্লীল ভাষায় গালিগালাজ করতে থাকেন। এ সময় চেয়ারম্যানের নির্দেশে ইউপি সদস্য আবুল হোসেন, প্রবীর বর্মনসহ কয়েকজন তাকে কিল, ঘুষি ও লাথি মারতে থাকেন। এক পর্যায়ে তাকে গাছের সাথে বেঁধে চেয়ারম্যান নিজেই লাঠি দিয়ে বেধড়ক পেটুনি দেন। পরে ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুর রহিম তাকে পুলিশের কাছে সোপর্দ করেন। প্রিন্স এডওয়ার্ড মাংসাং কান্নাজড়িত কণ্ঠে জানান, তিনি নির্যাতনের শিকার হলেও থানায় নেওয়ার পর পুলিশ তার চিকিৎসার ব্যবস্থা করেনি। আদালত থেকে জামিনে মুক্ত হয়ে তিনি চিকিৎসা নেন। ওই ঘটনার বিচার চেয়ে মধুপুর থানায় মামলা দায়ের করতে গেলেও পুলিশ মামলা নেয়নি। পরে টাঙ্গাইল এসে আদালতে দ্রুত বিচার আইনে মামলা দায়ের করেন। তিনি নির্যাতনের কারনে ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুর রহিমের অপসারণ ও দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবি করেন। সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন নির্যাতিত সাংবাদিক প্রিন্স এডওয়ার্ড মাংসাং। এ সময় উপস্থিত থেকে সংশ্লিষ্ট বিষয়ে সাংবাদিকদের প্রশ্নের উত্তর দেন, আবিমা গারো ইয়ুথ অ্যাসোসিয়েশন (আজিয়া) কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য সচিব শ্যামল মানখিন। এ সময় উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ গারো ছাত্র সংগঠন (বাগাছাস) কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি লিংকন দিব্রা, গারো স্টুডেন্ট ইউনিয়ন মধুপুর উপজেলা শাখার সভাপতি ইব্রীয় মানখিন, আদিবাসী ইউনিয়ন মধুপুর উপজেলা শাখার সভাপতি জুয়েল চাম্বুগং, বাঙ্গালী আদিবাসী ঐক্য পরিষদ কেন্দ্রীয় কমিটির সাধারণ সম্পাদক মিঃ রানা শর্মা, মধুপুর উপজেলা ছাত্রলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক সানী মারাক, ৯ নং অরনখোলা যুবলীগের সভাপতি রাজীব ম্রং, বাগাছাস মধুপুর উপজেলা শাখার সহ-সভাপতি বিশ্বজিৎ সিমসাং টিটু, থিওফিল মাজি, সাবেক সহ- সভাপতি বিজয় হাজং, গাসু মধুপুর উপজেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক হিমালয় চিরান, বাঙ্গালী আদিবাসী ঐক্য পরিষদ কেন্দ্রীয় পরিষদের সাংগঠনিক সম্পাদক মোঃ তারিকুল ইসলাম, আদিবাসী ইউনিয়ন মধুপুর উপজেলা শাখার সাংগঠনিক সম্পাদক হিলটন দফো ও জিএসএফ মধুপুর উপজেলা শাখার সাবেক সভাপতি সত্যজিৎ নকরেক।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *


ডিজাইন ও কারিগরি সহযোগিতায়: NATORE HOST